| |

সু চির ‘ফ্রিডম অব অক্সফোর্ড অ্যাওয়ার্ড’ প্রত্যাহার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মিয়ানমারে ক্ষমতাসীন দল এনএলডি’র নেত্রী অং সান সু চিকে দেওয়া  ‘ফ্রিডম অব অক্সফোর্ড অ্যাওয়ার্ড’ প্রত্যাহার করেছে শহর কর্তৃপক্ষ। রোহিঙ্গাদের ওপর সেনা নিপীড়নে সু চির নীরব ভূমিকার কারণে এ পদক প্রত্যাহার করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

 

রোহিঙ্গা ইস্যুতে কার্যকর পদক্ষেপ না নেওয়ায় এর আগে গত সপ্তাহে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির সেন্ট হিউ কলেজ থেকে সু চির প্রতিকৃতি সরিয়ে নেওয়া হয়।

 

মিয়ানমারের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় দীর্ঘ সংগ্রামের স্বীকৃতি হিসেবে ১৯৯৭ সালে সু চিকে এই সম্মাননা জানিয়েছিল যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড সিটি কাউন্সিল। তবে সিটি কাউন্সিলে পাস হওয়া এক প্রস্তাবে বলা হয়েছে, এখন আর তার জন্য এ সম্মাননা ‘যথোপযুক্ত নয়’।

 

২৪ আগস্ট রাতে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনা ও পুলিশের তল্লাশি চৌকিতে হামলা চালায় বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। এরপরই রোহিঙ্গা নিধন অভিযানে নামে সেনাবাহিনী।২৫ আগস্টের পর থেকে এ পর্যন্ত বাংলাদেশে প্রায় পাঁচ লাখ রোহিঙ্গা প্রবেশ করেছে। সেনাবাহিনীর এই ভূমিকা ও রোহিঙ্গা নির্যাতনের নিজের নীরব অবস্থানের কারণে বিশ্বজুড়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর পদে থাকা অং সান সু চি।

 

সু চির সম্মাননা প্রত্যাহারের প্রস্তাবে সমর্থনকারী অক্সফোর্ড সিটি কাউন্সিলের নেতা বব প্রাইস বলছেন, মিয়ানমারের পরিস্থিতি নিয়ে মানুষ ‘চরম ক্ষুব্ধ’ এবং দেশটিতে বর্বরতার খবর নিয়ে তার কথা না বলাটা খুবই অস্বাভাবিক।