| |

জামিন পেয়েছেন সেন্ট্রাল হাসপাতালের ৮ চিকিৎসক

ষ্টাফ রিপোর্টার:  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় ঢাকার সেন্ট্রাল হাসপাতালের বিরুদ্ধে অবহেলা ও ভুল চিকিৎসার অভিযোগে করা মামলায় অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহসহ ৮ চিকিৎসককে জামিন দিয়েছে আদালত।

সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম খুরশীদ আলম তাদের জামিনের আদেশ দেন বলে আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা এসআই মকবুল হোসেন জানিয়েছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের করা এই মামলায় আসামিদের পক্ষে জামিন আবেদন করেন আইনজীবী হারুন অর রশীদ। আদালতে জামিনের বিরুদ্ধে কোনো আবেদন হয়নি।

তিনি বলেন, আসামিদের প্রত্যেককে ৩০ হাজার টাকা মুচলেকায় জামিন দিয়েছে আদালত।

ডা. আবদুল্লাহ ছাড়া জামিন পাওয়াদের মধ্যে রয়েছেন- ডা. কাশেম ইউসুফ, ডা. মর্তুজা, ডা. এ এস এম মাতলুবুর রহমান, ডা. মাসুমা পারভীন, ডা. জাহানারা বেগম মোনা, ডা. মাকসুদ পারভীন ও ডা. তপন কুমার বৈরাগী।

বৃহস্পতিবার বিকালে গ্রিন রোডের সেন্ট্রাল হাসপাতালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী আফিয়া জাইন চৈতীর মৃত্যু হয়। এর পর পরই সতীর্থরা হাসপাতালটিতে ভাংচুর চালায়।

তাদের অভিযোগ- বুধবার ডেঙ্গু জ্বর নিয়ে হাসপাতালটিতে ভর্তি হলেও তাকে ক্যান্সারের চিকিৎসা দেওয়া হয়।

পর রাতে ‘অবহেলা’ ও ‘ভুল চিকিৎসার’ অভিযোগে হাসপাতালের পরিচালক এমএ কাশেমসহ ৯ চিকিৎসককে আসামি করে কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে এই মামলা হয়।

ধানমণ্ডি থানায় করা এই মামলা গ্রেপ্তারের পরদিন হাসপাতালের পরিচালক কাশেমকে শুক্রবার জামিন দেয় আদালত।